৪৩ বছর জেল খাটার পর মার্কিন আদালত জানালো তিনি ‘নিরপরাধ’

উত্তর আমেরিকা অফিস
২৪ নভেম্বর ২০২১, দুপুর ২:০০ সময়

মঙ্গলবার বিচারক কেভিনের মুক্তির আদেশ দেন।

১৯৭৯ সালে তিনজনকে হত্যার দায়ে কেভিনকে শাস্তি দেয়া হয়। জুরিরা সকলেই ছিলেন শ্বেতাঙ্গ। ৪৩ বছর পর সরকারি আইনজীবীরা চলতি বছরের গোড়ায় জানিয়েছিলেন, কেভিন নিরপরাধ। জুরিদের রায় ভুল ছিল। এরপর বিচারক জেমস ওয়েলশ তাকে অবিলম্বে মুক্তির নির্দেশ দেন।

সংশোধনাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর কেভিন বলেছেন, ‘আমি রেগে নেই। আমি জানি, যথেষ্ট হয়েছে। কিন্তু আপনাদের মধ্যে আমি আবেগ তৈরি করতে পেরেছি। এই ধরনের আবেগ সম্ভবত আপনাদের মধ্যে আগে আসেনি।’ কেভিন বলেন, ‘আমার আনন্দ, দুঃখ, ভয় সবই হচ্ছে।’

কেভিনের বিরুদ্ধে একমাত্র প্রমাণ ছিল প্রত্যক্ষদর্শী সিন্থিয়া স্ট্রিকল্যান্ডের সাক্ষ্য। সিন্থিয়াই ছিলেন একমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী।

আদালতে তিনি জানান, কেভিনকে তিনি দেখেছেন। পরে সিন্থিয়া বলেছিলেন, পুলিশ জোর করে তাকে দিয়ে এই কাজ করিয়েছে। তাই তিনি কেভিনের নাম বলেছিলেন। পরে তিনি বারবার এই বিষয়ে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। ২০১৫ সালে তার মৃত্যু হয়।

বড় ভাইয়ের প্রতিদ্বন্দ্বী ছোট ভাই, পেলেন ১৮৯ ভোট

আওয়াজবিডি ডেস্ক
৩০ নভেম্বর ২০২১, দুপুর ১২:০৪ সময়

শুধু মিলনই নয় ওই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আরেক প্রার্থী তারেকুল ইসলামেরও জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তিনি জাসদ থেকে মশাল প্রতীকে ১৫১৪ ভোট পেয়েছেন। মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সকালে কালাই উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, কালাইয়ের উদয়পুর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ওয়াজেদ আলী ১৪ হাজার ৭৪৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার ছোট ভাই স্বতন্ত্র প্রার্থী মিলন হোসেন মন্ডল মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে ১৮৯ ভোট পেয়েছেন। তিনি ওই ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদে ছিলেন। নৌকা প্রতীকের বিদ্রোহী হওয়ায় গত ২৪ নভেম্বর তাকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। জাসদ মনোনীত প্রার্থী তারেকুল ইসলাম মশাল প্রতীক নিয়ে ১ হাজার ৫১৪ ভোট পেয়েছেন।

কালাই উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম বলেন, মোট প্রাপ্ত ভোটের আট ভাগের এক ভাগ ভোট না পেলে ওই প্রার্থীর জামানতের টাকা ফেরত দেওয়া হয় না। ইউপি নির্বাচনে উদয়পুর ইউনিয়নে দুই প্রার্থী আট ভাগের এক ভাগের চেয়েও ভোট কম পেয়েছেন। তাই তাদের জামানত বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। তারা কেউই জামানত হিসেবে দেওয়া পাঁচ হাজার টাকা আর ফেরত পাবেন না।

তৃতীয় ধাপে গত ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে জয়পুরহাটের কালাই উপজেলোর পাঁচটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের পাঁচজন প্রার্থীই জয়লাভ করেছেন।

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি/ইউএস