টেস্ট ক্রিকেট বিচারে বাংলাদেশের এই ক্রিকেটারের অবস্থান কোথায়

আওয়াজবিডি ডেস্ক
২৫ নভেম্বর ২০২১, দুপুর ১:০৮ সময়

ক্রিকেট নিয়ে যারা আলোচনা করেন তাদের মধ্যে জিম্বাবুয়ে ও বাংলাদেশ টেস্ট চলাকালীন সময়েই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও বিশ্লেষকদের টেবিলে চলছে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের সম্ভাব্য টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের কথা।

রবিবার হারারে টেস্টের পঞ্চম দিন যখন বাংলাদেশ ক্রিকেট দল মাঠে নামে তখন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে তারা 'গার্ড অফ অনার' দেয়।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই টেস্ট ম্যাচটিই হয়ে থাকলো মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের শেষ টেস্ট ম্যাচ।

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদে এই হারারে টেস্টেই ১৫০ রানের একটি ইনিংস খেলেন। প্রায় খাদের কিনারে থাকা বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং লাইন আপের হাল ধরে তিনি কন্ট্রিবিউট করেন ৪৬৮ রানের সংগ্রহ গড়ে তুলতে।

তবে এই সিরিজেও প্রাথমিক দলে ছিলেন না মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

শেষে রিয়াদকে আলাদা করে দলে নেয়া হয়।

দেড়শ রানের ইনিংসটির পরে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের বরাদ দিয়ে গণমাধ্যমের কাছে ভিডিও বার্তা পাঠান সেখানে অবশ্য তিনি অবসর নিয়ে কোন কথা বলেননি।

তবে মাহমুদুল্লাহর টেস্ট ক্যারিয়ারের শেষ বেশ আগেই দেখে ফেলেছিলেন ক্রিকেটের অনেক বিশ্লেষক। রিয়াদের টেস্ট ক্যারিয়ার নিয়ে আলোচনায় একটা কথা প্রায়শই আসে প্রায় আট বছর একটিও টেস্ট সেঞ্চুরি পাননি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

এই সময়ের মধ্যে তাকে দল থেকে বাদ দেয়া বা এমন কোন প্রশ্নও তেমন ওঠেনি।

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে টেস্ট দল থেকে বাদ দেয়ার চিন্তাভাবনা করেছিলেন বাংলাদেশের সাবেক কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।

বাংলাদেশের শততম টেস্টে তাকে একাদশ থেকে বাদ দেন তিনি।

কিন্তু রিয়াদ আবার ফিরে আসেন।

এরপর তিনি 'বাদ' পড়েন, ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে। কিন্তু সেবার 'বাদ' শব্দটি উচ্চারণ করেননি নির্বাচকরা।

কী এমন ছিল রিয়াদের যে তিনি নিয়মিত এতো বছর টেস্ট খেলে গেছেন ব্যাখ্যা করেন বাংলাদেশের ক্রিকেট কোচ ও খেলাটির পর্যবেক্ষক নাজমুল আবেদীন ফাহিম, "বাংলাদেশ টেস্টে আহামরি ভালো টিম না, যে একটি পজিশনের জন্য অনেক ক্রিকেটারের প্রতিযোগিতা হবে। আবার দুই একজন বাদ দিলে তেমন খেলোয়াড়ও নেই যাদের টেস্টে উল্লেখযোগ্য পারফরম্যান্স আছে।"

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ এখন পর্যন্ত ৫০টি টেস্টে মাঠে নেমেছেন, রান করেছেন ২৯১৪, গড় ৩৩.৪৯।

রিয়াদের চেয়ে বেশি গড় বাংলাদেশের হয়ে আছে মুমিনুল, সাকিব, তামিম ও মুশফিকুর রহিমের।

বাংলাদেশের হয়ে টেস্টে একমাত্র মুমিনুলের গড়ই ৪০ এর ওপরে।

তবে পরিসংখ্যান তো নিছক সংখ্যামাত্র খেলায় প্রভাব কেমন এটা খতিয়ে দেখার কথাও বলেন নাজমুল আবেদীন ফাহিম।

মি. ফাহিমের মতে, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অধিকাংশ ইনিংসই বিপদের সময়।

"ক্রাইসিস মোমেন্টেই বাংলাদেশ দলকে নিয়মিত উদ্ধার করার কাজটা চালিয়ে গেছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।"

টেস্ট ক্রিকেটে মাহমুদুল্লাহ'র ব্যাটিং ইনিংসের তালিকা ঘাটলেই এমন অনেক ইনিংস পাওয়া যায় যখন খুব দ্রুতই চার বা পাঁচ উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ।

সেদিক থেকে মাহমুদুল্লাহ নিজের দায়িত্ব চালিয়ে নিয়ে গেছেন বলেই মনে করেন মি. ফাহিম তবে তিনি মনে করেন না যে ব্যাটিং লাইন আপের ওপরের দিকে খেললেই রিয়াদের ক্যারিয়ার অন্যরকম হতো।

"ওপরে যারা খেলেছে, সাকিব, মুশফিক, এরাও তো নিয়মিত পারফর্মার। তাদের বাদ দিয়ে রিয়াদকে নেয়াটা খুব একটা ভালো হতো বলে মনে হয় না।"

৯৪ ইনিংসের টেস্ট ক্যারিয়ারে রিয়াদের ব্যাট থেকে এসেছে ১৬টি ফিফটি এবং পাঁচটি সেঞ্চুরি।

বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্তরা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে 'সাইলেন্ট কিলার' বলে থাকেন, নীরব ঘাতক, যার ডাকাবুকো কম কিন্তু কাজের কাজ করে দেন।

প্রায় এক যুগের ক্যারিয়ারে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে রিয়াদ বাংলাদেশকে ম্যাচ জিতিয়েছেনও, কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে এই উদাহরণ কম আর যদি হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে শেষ টেস্টটিই হয়ে থাকবে তার ক্যারিয়ারের দৃষ্টান্ত।

১৩২ রানে ৬ উইকেট চলে যাওয়া পর মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ দলকে নিয়ে যান নিরাপদে সেখান থেকেই বিদায়ের ঘোষণাটি এল আজ, বিদায়ের ক্ষণে জানান দিয়ে গেলেন তিনিও টেস্টে ম্যাচ জেতাতে পারেন।

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি/ইউএস

বিয়ে করছেন মৌনী রায়, গ্র্যান্ড রিসেপশন কোচবিহারে

আওয়াজবিডি ডেস্ক
৩০ নভেম্বর ২০২১, দুপুর ১২:০০ সময়

এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, আগামী ২৭ জানুয়ারি বিয়ে করছেন মৌনী। ২৬ জানুয়ারি প্রি ওয়েডিং কিছু অনুষ্ঠান রয়েছে। বিয়ের আসর বসবে ইটালি অথবা দুবাইতে। জানিয়েছেন মৌনীর আত্মীয়রা। তারাই সংবাদমাধ্যমের কাছে মৌনীর বিয়ের খবর প্রকাশ্যে এনেছেন। তবে শুধু বিদেশেই নয়, ভারতেও হবে বিয়ের অনুষ্ঠান। তাও আবার বাংলাতেই, মৌনীর বাড়ি কোচবিহারে। বিয়ের পরে রিসেপশনের আয়োজন করা হয়েছে।

বিয়ের খবর প্রকাশ্যে এলেও মৌনী ও সুরজকে খুব কমই এক সঙ্গে দেখা গেছে। তবে একবার মৌনী তার পোষ্য সারমেয় ও সুরজের একটি ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছিলেন, ‘দুজনেই আমার। আই লাভ ইউ।’ এই বছরের প্রথম দিকে মন্দিরা বেদীর বাড়িতে সুরজের সঙ্গে দেখা করেছিলেন মৌনীর মা ও বাবা। তাই আন্দাজ করাই যাচ্ছে বিয়ের প্রস্তুতি প্রায় শেষ। খুব শিগগিরই বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন তিনি। ফলে বলিউড আরও একটি গ্র্যান্ড ওয়েডিং দেখবে।

হিন্দি টেলিভিশন থেকে মুম্বাইয়ে অভিনয় শুরু করেছিলেন মৌনী। তারপর বড় পর্দায় জায়গা করে নেন। কিঁউকি সাঁস ভি কভি বহু থি ধারাবাহিক তার প্রথম কাজ। এরপর নাগিন, দো সহেলিয়া-র মতো ধারাবাহিকে কাজ করেছেন। মৌনী বড় পর্দায় কেজিএফ, রোমিও আকবর ওয়াল্টার-এ অভিনয় করেছেন। সম্প্রতি মৌনী তারকা ফুটবলার ডেভিড বেকহ্যামের সঙ্গে দেখা করেন এবং ছবি তোলেন।

বলিউডে এখন একের পরে এক তারকার বিয়ের পালা। কিছুদিন আগেই সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন রাজকুমার রাও ও পত্রলেখা। বর্তমানে আলোচনার কেন্দ্রে ক্যাটরিনা কাইফ ও ভিকি কৌশলের বিয়ে। আগামী ৯ ডিসেম্বর গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছেন দুজনে। অন্যদিকে তারকা জুটি রিচা চড্ডা ও আলি ফাজলও খুব শিগগিরই বিয়ে করবেন বলে শোনা যাচ্ছে। সূত্র: নিউজ১৮

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি/ইউএস