ম্যারাডোনার জন্য এখনো কাদেন মেসি

আওয়াজবিডি ডেস্ক
২৫ নভেম্বর ২০২১, দুপুর ১:২৭ সময়

বছর পেরিয়ে গেলেও এখন প্রিয় ফুটবলার, মেন্টরের জন্য কাঁদেন লিওনেল মেসি। ম্যারাডোনার সঙ্গে তার সম্পর্কের গভীরতার কথা জানা আছে অনেকেরই। গুরু-শিষ্যের বন্ধন বলে কথা। বৃহস্পতিবার ডিয়েগো ম্যারাডোনার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’র সঙ্গে কথা বলেন মেসি।

প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের আর্জেন্টাইন মহাতারকা বলছিলেন, ‘চোখের পলকে এক বছর পেরিয়ে গেছে, অবিশ্বাস্য লাগছে। আর্জেন্টিনা এত বছর পর শিরোপা জিতল। অথচ তিনি নেই। সত্য হলো এটা অদ্ভুত এক অনুভূতি তিনি নেই, মন থেকে বিশ্বাস হতে চায় না। সব সময়ই মনে হয়, টিভিতে কিংবা সংবাদমাধ্যমে দেখবো তাকে। কোনো বিষয়ে হয়তো মতামত দেবেন নিজের। এতগুলো দিন পেরিয়ে গেল কিন্তু মনে হচ্ছে সেদিনের ঘটনা। আমি সেরা স্মৃতিগুলোই মনে রাখব। তার সঙ্গে কিছু ভাগ করতে পারায় নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে হয়।’

গুরু ম্যারাডোনার জন্য অশ্রু সজল হয়ে উঠেন মেসি। মনে পড়ে প্রতিটি সাফল্য আর ব্যর্থতার দিনেও। এ বছরের জুলাইয়ে কোপা আমেরিকা জয়ের পর যেমনটা বলেছিলেন, ‘অবশ্যই এটা ডিয়েগোর জন্যও, তিনি যেখানেই থাকুন না কেন আমাদের সমর্থন দিয়েছেন।’ মানে শিরোপাটা উৎসর্গ করেন প্রিয় মানুষটিকে।

ম্যারাডোনা বেঁচে থাকতে মেসি জাতীয় দলের হয়ে কোন ট্রফি পাননি। তবে তিনি মারা যেতেই মিলল তার প্রথম ট্রফি। এখনো লড়ে যাচ্ছেন। আর্জেন্টিনার হয়ে সামনে বিশ্বকাপেও চোখ আছে মেসির। যার খেলায় এখনো ভক্তরা খুঁজে পান ম্যারাডোনার সেই ড্রিবলিং, নিখুঁত সব পাস আর গোলের ছায়া!

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি/ইউএস

ফেলে দেওয়া সিগারেট থেকে পেট্রল পাম্পে আগুন, একজনের মৃত্যু

আওয়াজবিডি ডেস্ক
৩০ নভেম্বর ২০২১, দুপুর ১১:১০ সময়

এর আগে বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টায় এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। মৃত মতিউর রহমান (২১) নাজিরপুর খন্দকারপাড়া গোলজার হোসেনের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ওই পাম্পে শ্রমিকের কাজ করতেন।

দগ্ধ অপর দুইজন হলেন শাকিল আহমেদ (২৪) আবু সাইদ (৩২)। তারা শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা গেছে, সেদিন সকালে ৩ জন দগ্ধ হলে তাদের উদ্ধার করে প্রথমে পাবনা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় পাবনা থেকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর করা হয়।

বেঙ্গল পেট্রল পাম্পের এক কর্মচারী সকালে একটি ট্রাকে তেল দেওয়ার সময় হঠাৎ বিস্ফোরণ হয়। কর্মচারী মতিউর রহমানসহ ওই ট্রাকের দুইজন দগ্ধ হয়। কীভাবে এই বিস্ফোরণ হলো কিছুই বুঝে উঠার আগেই গায়ে আগুন লেগে যায় তাদের।

পাবনা জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে দগ্ধ মো. মতিউর রহমানের শরীরের ৫২ শতাংশ, মো. শাকিল আহমেদের ৪৬ শতাংশ ও সাইদের শরীরের ৫৬ শতাংশ দগ্ধ হওয়াতে তাদের দ্রুত ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়।

পাম্পের মালিক আলমগীর হোসেন বলেন, একটি ট্রাকে তেল দিচ্ছিল মতিউরসহ আরও দুইজন। ট্রাকের ওপরে একজন ধুমপান করছিল, বুঝতে না পেরে পাম্পের ওপর সিগারেটের বাকি অংশ ফেললে সঙ্গে সঙ্গে বিস্ফোরণ ঘটে। সেখানে থাকা তিনজন দগ্ধ হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করি।

পাবনা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, আজ সকালে শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট থেকে আমাকে ফোনে মৃত্যুর বিষয়টি তারা জানিয়েছেন। পরিবার অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি/ইউএস