‘শনাক্ত দুই শতাংশের নিচে থাকলেও আত্মতুষ্টির সুযোগ নেই’

আওয়াজবিডি ডেস্ক
২২ ডিসেম্বর ২০২১, দুপুর ৩:১৬ সময়

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (রোগনিয়ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. মো. নাজমুল ইসলাম বলেছেন, ডিসেম্বর মাসের প্রথম তিন সপ্তাহে করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার হার দুই শতাংশের নিচে রয়েছে। এ সময়ে ৫ হাজার ৫৯ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

তিনি বলেন, যদিও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর হার অব্যাহতভাবে দুই শতাংশের নিচে রয়েছে, তবুও আত্মতুষ্টির সুযোগ নেই। করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিকল্প নেই।

বুধবার (২২ ডিসেম্বর) দুপুরে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য বুলেটিনে বক্তব্যকালে তিনি এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক নাজমুল ইসলাম জানান, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে জুলাই মাসে সর্বোচ্চ সংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত হয়। সারা দেশের মধ্যে ঢাকা জেলায় সর্বোচ্চ সংখ্যক ৫ লাখ ৩৩ হাজার এবং সর্বনিম্ন কক্সবাজার জেলায় ২৩ হাজার ৪২২ জন রোগী শনাক্ত হয়।

তিনি জানান, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা আগের তুলনায় বাড়তে শুরু করেছে। এছাড়া প্রতিবেশী দেশ ভারতে ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২০০ ছড়িয়েছে। যাদের বেশিরভাগই পাওয়া গেছে মহারাষ্ট্র ও দিল্লিতে। এছাড়া কর্ণাটক, কেরালা, গুজরাট এবং রাজস্থানে ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এ পরিচালক বলেন, বর্তমানে ডেঙ্গু পরিস্থিতি যথেষ্ট ভালো রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মাত্র ১৩ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ডেঙ্গু প্রতিরোধে ব্যক্তিগত সচেতনতা ও দায়বদ্ধতা অতি জরুরি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি/ইউএস

নিষিদ্ধঘোষিত বস্তু নিয়ে ৯ মাস নিষিদ্ধ হামজা

স্পোর্টস ডেস্ক
১৭ মে ২০২২, রাত ১১:৩৯ সময়

গত মার্চে হামজার শরীরে নিষিদ্ধঘোষিত বস্তুর উপস্থিতি পাওয়ার পর অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা দেয় আইসিসি। আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে হামজার নিষেধাজ্ঞার মেয়াদের খবর জানায় তারা। নিষেধাজ্ঞার সময়ে সব ধরনের ক্রিকেট কার্যক্রম থেকে বিরত থাকতে হবে ২৬ বছর বয়সী হামজাকে।

এ বছরের জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকার পার্লে নমুনা দিয়েছিলেন হামজা। আইসিসির টুর্নামেন্টের পাশাপাশি নিয়মিত ডোপ টেস্ট কার্যক্রমের অন্তর্গত ছিল সেটি। হামজার নমুনায় ফুরোসমাইড নামের নিষিদ্ধ বস্তু পাওয়া গেছে। ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির (ওয়াডা) ২০২২ সালের পঞ্চম অধ্যায়ে ফুরোসমাইডকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আইসিসি ওয়াডার সদস্য।

আইসিসি বলেছে, হামজা তাঁর অপরাধ মেনে নিয়েছেন। সেভাবে তাঁর ত্রুটি ও অবহেলা প্রমাণিত না হলেও ৯ মাসের জন্য নিষিদ্ধ থাকবেন তিনি। এ বছরের ২২ মার্চ থেকে কার্যকর হবে তাঁর নিষেধাজ্ঞা। ফলে ২২ ডিসেম্বর ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন তিনি। আইসিসি জানায়, ১৭ জানুয়ারি থেকে ২২ মার্চ পর্যন্ত হামজার পারফরম্যান্স রেকর্ড বইয়ে থাকবে না।

হামজার নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে আইসিসির সাধারণ ব্যবস্থাপক অ্যালেক্স মার্শাল বলেছেন, ‘আইসিসি ক্রিকেটকে পরিচ্ছন্ন রাখতে বদ্ধপরিকর। ডোপিংয়ের ব্যাপারে ছাড় না দেওয়ার নীতি আমাদের। আন্তর্জাতিক সব ক্রিকেটারের প্রতি এটি বার্তা, তাদের শরীরে কী ঢুকছে সেটির দায় তাঁদেরই। নিষিদ্ধ বস্তু নেই, সেটি নিশ্চিত করেই ওষুধ গ্রহণ করতে হবে। যাতে ডোপিং বিরোধী নিয়ম ভঙ্গ না হয়।’

২০১৯ সালে অভিষেকের পর থেকে এখন পর্যন্ত ৬টি টেস্ট ও ১টি ওয়ানডে খেলেছেন হামজা। ১৭.৬৬ গড়ে ২১২ রান করেছেন, সর্বোচ্চ ইনিংস ৬২ রানের। সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন নিউজিল্যান্ড সফরে। বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ও ওয়ানডে দুই দলে থাকলেও ‘ব্যক্তিগত কারণ’ দেখিয়ে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন। এরপরই জানা যায়, নিষিদ্ধঘোষিত বস্তু নেওয়ার অভিযোগ ছিল তাঁর বিপক্ষে।

হামজার আগে শরীরে নিষিদ্ধঘোষিত বস্তুর উপস্থিতি পাওয়ার পর নিষিদ্ধ করা হয় সাবেক জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলরকে। দুর্নীতির দায়ে সাড়ে তিন বছরের নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি ডোপিং–বিরোধী ধারায় এক মাসের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয় টেলরকে।

অনি/আওয়াজবিডি/ইউএস