ওমিক্রন: বিধিনিষেধের প্রজ্ঞাপন নিয়ে যা জানালেন স্বাস্থ্য সচিব

আওয়াজবিডি ডেস্ক
৫ জানুয়ারি ২০২২, রাত ৯:৫৪ সময়

বুধবার (৫ জানুয়ারি) রাজধানীর জাতীয় ক্যান্সার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান। এর আগে মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) করোনাভাইরাসের আফ্রিকান ধরন ওমিক্রন ঠেকাতে ১৫ দফা নির্দেশনা জারি করে স্বাস্থ্য অধিদফতর। বিধিনিষেধ নিয়ে প্রজ্ঞাপন যেকোনো সময় হতে পারে জানিয়ে লোকমান হোসেন মিঞা বলেন, আজ-কালের মধ্যেই পেয়ে যাবেন।প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসের আফ্রিকান ধরন ওমিক্রন ঠেকাতে মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) ১৫ দফা নির্দেশনা জারি করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।নির্দেশনাসমূহ হলো-১. ওমিক্রন আক্রান্ত দেশ থেকে আগত যাত্রীদের বন্দরে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও স্ক্রিনিং জোরদার করতে হবে।২. সব ধরনের (সামাজিক/ রাজনৈতিক/ ধর্মীয় ও অন্যান্য) জনসমাগম নিরুৎসাহিত করতে হবে।৩. প্রত্যেক ব্যক্তিকে বাড়ির বাইরে সর্বদা সঠিকভাবে নাক-মুখ ঢেকে মাস্ক পরাসহ সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিত করতে হবে।৪. রেস্তোরাঁতে ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক বা তার কম লোক বসে খেতে পারবে।৫. সকল প্রকার জনসমাবেশ, পর্যটন স্থান, বিনোদন কেন্দ্র, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার, সিনেমা হল/ থিয়েটার হল ও সামাজিক অনুষ্ঠানে (বিয়ে, বউভাত, জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি ইত্যাদি) ধারণক্ষমতার অর্ধেক বা তার কমসংখ্যক লোক অংশগ্রহণ করতে পারবে।৬. মসজিদসহ সব উপাসনালয়ে মাস্ক পরিধানসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে হবে।৭. গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে হবে।৮. আক্রান্ত দেশ থেকে আগত যাত্রীদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে হবে।৯. সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান (সকল মাদ্রাসা, প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিকসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বিশ্ববিদ্যালয়) ও কোচিং সেন্টারে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে হবে।১০. সকল স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানে সেবাগ্রহীতা, সেবাপ্রদানকারী ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সর্বদা সঠিকভাবে নাক-মুখ ঢেকে মাস্ক পরাসহ সকল স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে হবে।১১. যারা এখনো কোভিড-১৯-এর টিকা গ্রহণ করেননি টিকাকেন্দ্র গিয়ে তাদের কোভিড-১৯-এর প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে।১২. করোনার উপসর্গ/লক্ষণযুক্ত সন্দেহজনক ও নিশ্চিত করোনা রোগীর আইসোলেশন ও করোনা পজিটিভ রোগীর ঘনিষ্ঠ সংস্পর্শে আসা অন্যদের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে হবে।১৩. কোভিড-১৯-এর লক্ষণযুক্ত ব্যক্তিকে আইসোলেশনে রাখা এবং তার নমুনা পরীক্ষার জন্য স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করে সহায়তা করা যেতে পারে।১৪. অফিসে প্রবেশ এবং অবস্থানকালীন বাধ্যতামূলকভাবে নাক-মুখ ঢেকে মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা দাফতরিকভাবে নিশ্চিত করতে হবে।১৫. টিকা নেওয়া থাকলেও বাইরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে।কোভিড-১৯ রোগ নিয়ন্ত্রণ ও সংক্রমণ হ্রাস করার জন্য কমিউনিটি পর্যায়ে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার সচেতনতা তৈরির জন্য মাইকিং ও প্রচারণা চালানো যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে প্রয়োজনে মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডার মাইক ব্যবহার করা যেতে পারে এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যসহ নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করা যেতে পারে।নির্দেশনাসমূহ দেশব্যাপী কঠোরভাবে পালনের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগ সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

হাবিব/আওয়াজবিডি/ইউএস

নিষিদ্ধঘোষিত বস্তু নিয়ে ৯ মাস নিষিদ্ধ হামজা

স্পোর্টস ডেস্ক
১৭ মে ২০২২, রাত ১১:৩৯ সময়

গত মার্চে হামজার শরীরে নিষিদ্ধঘোষিত বস্তুর উপস্থিতি পাওয়ার পর অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা দেয় আইসিসি। আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে হামজার নিষেধাজ্ঞার মেয়াদের খবর জানায় তারা। নিষেধাজ্ঞার সময়ে সব ধরনের ক্রিকেট কার্যক্রম থেকে বিরত থাকতে হবে ২৬ বছর বয়সী হামজাকে।

এ বছরের জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকার পার্লে নমুনা দিয়েছিলেন হামজা। আইসিসির টুর্নামেন্টের পাশাপাশি নিয়মিত ডোপ টেস্ট কার্যক্রমের অন্তর্গত ছিল সেটি। হামজার নমুনায় ফুরোসমাইড নামের নিষিদ্ধ বস্তু পাওয়া গেছে। ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির (ওয়াডা) ২০২২ সালের পঞ্চম অধ্যায়ে ফুরোসমাইডকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আইসিসি ওয়াডার সদস্য।

আইসিসি বলেছে, হামজা তাঁর অপরাধ মেনে নিয়েছেন। সেভাবে তাঁর ত্রুটি ও অবহেলা প্রমাণিত না হলেও ৯ মাসের জন্য নিষিদ্ধ থাকবেন তিনি। এ বছরের ২২ মার্চ থেকে কার্যকর হবে তাঁর নিষেধাজ্ঞা। ফলে ২২ ডিসেম্বর ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন তিনি। আইসিসি জানায়, ১৭ জানুয়ারি থেকে ২২ মার্চ পর্যন্ত হামজার পারফরম্যান্স রেকর্ড বইয়ে থাকবে না।

হামজার নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে আইসিসির সাধারণ ব্যবস্থাপক অ্যালেক্স মার্শাল বলেছেন, ‘আইসিসি ক্রিকেটকে পরিচ্ছন্ন রাখতে বদ্ধপরিকর। ডোপিংয়ের ব্যাপারে ছাড় না দেওয়ার নীতি আমাদের। আন্তর্জাতিক সব ক্রিকেটারের প্রতি এটি বার্তা, তাদের শরীরে কী ঢুকছে সেটির দায় তাঁদেরই। নিষিদ্ধ বস্তু নেই, সেটি নিশ্চিত করেই ওষুধ গ্রহণ করতে হবে। যাতে ডোপিং বিরোধী নিয়ম ভঙ্গ না হয়।’

২০১৯ সালে অভিষেকের পর থেকে এখন পর্যন্ত ৬টি টেস্ট ও ১টি ওয়ানডে খেলেছেন হামজা। ১৭.৬৬ গড়ে ২১২ রান করেছেন, সর্বোচ্চ ইনিংস ৬২ রানের। সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন নিউজিল্যান্ড সফরে। বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ও ওয়ানডে দুই দলে থাকলেও ‘ব্যক্তিগত কারণ’ দেখিয়ে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন। এরপরই জানা যায়, নিষিদ্ধঘোষিত বস্তু নেওয়ার অভিযোগ ছিল তাঁর বিপক্ষে।

হামজার আগে শরীরে নিষিদ্ধঘোষিত বস্তুর উপস্থিতি পাওয়ার পর নিষিদ্ধ করা হয় সাবেক জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলরকে। দুর্নীতির দায়ে সাড়ে তিন বছরের নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি ডোপিং–বিরোধী ধারায় এক মাসের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয় টেলরকে।

অনি/আওয়াজবিডি/ইউএস