বরিশালে বিএনপির কমিটি

অনুমোদনের আগে তদন্তের দাবি

আওয়াজবিডি ডেস্ক
৭ জানুয়ারি ২০২২, দুপুর ২:০৯ সময়

বরিশাল মহানগর বিএনপির পূর্ণাঙ্গ আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে আপত্তি তুলেছেন দলটির সদ্য বিলুপ্ত কমিটির অন্তত ৩১ নেতা। তারা তদন্ত করে প্রস্তাবিত কমিটি অনুমোদনের দাবি তুলেছেন। এ–সংক্রান্ত একটি লিখিত অভিযোগও দিয়েছেন বাদ পড়া সক্রিয় নেতারা। সম্প্রতি এই কমিটি অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রীয় মহাসচিবের কাছে জমা দেওয়া হয়েছে।

গত ৩ নভেম্বর কেন্দ্রীয় বিএনপি বরিশাল মহানগর ও উত্তর-দক্ষিণ দুই জেলা কমিটি বিলুপ্ত করে আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা দেয় বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটি। এতে প্রত্যেক কমিটিতে আহ্বায়ক ও দুজনকে যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছিল। ওই কমিটি এখন ৪১ সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ আহ্বায়ক কমিটি গঠনের উদ্যোগ নিয়েছে।

দলীয় সূত্র জানায়, ৩ নভেম্বর ঘোষিত কমিটিতে নগর বিএনপির সদ্য সাবেক সভাপতি মজিবর রহমান সরোয়ার, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদ্য সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকেরাও বাদ পড়েন। এ নিয়ে দলের মধ্যে ক্ষোভ-বিভেদ রয়েছে। এমন প্রেক্ষাপটে বরিশাল মহানগর বিএনপির ৪১ সদস্যবিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদনের জন্য জমা দিয়েছেন আহ্বায়ক ও যুগ্ম আহবায়কেরা। এ কমিটিতে মহানগরের পুরোনো ও ত্যাগী নেতাদের রাখা হয়নি বলে অভিযোগ তুলেছেন সদ্য বিলুপ্ত নগর কমিটির ৩১ নেতা। তারা দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

লিখিত ওই অভিযোগে নেতারা উল্লেখ করেন, ৪১ সদস্যবিশিষ্ট নগর বিএনপির যে পূর্ণাঙ্গ আহ্বায়ক কমিটি কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে অনুমোদনের জন্য জমা দেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে অর্ধেকের বেশি আছেন যারা ২০০৭ সালে সেনা–সমর্থিত সরকার ক্ষমতা নেওয়ার পর আর দলের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেননি। একই সঙ্গে বর্তমান সরকারের ১০ বছরের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে রাজপথে কোনো আন্দোলন–সংগ্রামে অংশগ্রহণ করেননি। তারা নিষ্ক্রিয় ছিলেন এবং ক্ষমতাসীন দলের সঙ্গে অনেকে সুসম্পর্ক রেখে ব্যবসা-বাণিজ্য নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন।

সদ্য বিলুপ্ত মহানগর কমিটির সহসভাপতি আব্বাস উদ্দীন অভিযোগ করেন, ‘আমরা যারা এই সরকারের বিরুদ্ধে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করতে গিয়ে জেল, জুলুম ও নির্যাতনের শিকার হয়েছি, তাদের কাউকে এই আহ্বায়ক কমিটিতে রাখা হয়নি। এমনকি মহানগরের ৩০টি ওয়ার্ডের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সঙ্গে কোনো ধরনের পরামর্শ করা হয়নি। ঘরে বসে নিজেদের লোকজন নিয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সহসাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক বলেন, ‘আমরা যারা রাজপথে থেকে আন্দোলন-সংগ্রামে অংশ নিয়েছি, এখন তারা বিএনপি থেকে নির্বাসিত। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও মহাসচিবের কাছে অনুরোধ, ওই কমিটি অনুমোদনের আগে ৪১ জনের ব্যাপারে তদন্ত করে, খোজ-খবর নিয়ে অনুমোদন করা হোক।’

বরিশাল মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান ফারুক অবশ্য এমন অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করেননি। তিনি বলেন, মূল কমিটি ১৭১ সদস্যের। এখন মাত্র ৪১ জন সদস্য নিয়ে আহ্বায়ক কমিটি হচ্ছে। পূর্ণাঙ্গ মূল কমিটি যখন হবে, তখন ত্যাগী যারা বাদ পড়েছেন তারা স্থান পাবেন। আহ্বায়ক কমিটি গঠন করার পর কয়েকজন দলের কর্মসূচিতে আসছেন না, এটা দুঃখজনক। তারা সবাইকে নিয়েই দল করতে চান।

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি/ইউএস

ছাত্রলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

আওয়াজবিডি ডেস্ক
৩ জুলাই ২০২২, রাত ১০:১৯ সময়

কক্সবাজার সদরের খুরুশকুলে ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল উদ্দিনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে খুরুশকুলের ডেইলপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

২৬ বছর বয়সী ফয়সাল উদ্দিন ওই ইউনিয়নের কাউয়ারপাড়া এলাকার লাল মোহাম্মদের ছেলে। তিনি কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মাহমুদুল করিম মাদু বলেন, ‘বিকেলে খুরুশকুল ইউনিয়নের ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলন ছিল। সম্মেলন শেষে সন্ধ্যায় সবাই ফিরছিলেন। ডেইলপাড়া এলাকার আজিজ সিকদার ও জহিরের নেতৃত্বে একদল দুর্বৃত্ত ফয়সাল উদ্দিনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও গুলি করে পালিয়ে যায়। তাকে স্থানীয়রা কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

ওই হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার আশিকুর রহমান জানান, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। আহত দুজনকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. সেলিম উদ্দিন জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে।

পুলিশ এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু করেছে বলে জানান তিনি।

ইব্রাহিম/আওয়াজবিডি/ইউএস