টেক্সাসে অভিবাসীবাহী ট্রাকের ধাক্কায় ৪ জন নিহত

উত্তর আমেরিকা অফিস
২ জুলাই ২০২২, রাত ১:২৪ সময়

টেক্সাসের কর্মকর্তাদের মতে, বৃহস্পতিবার ট্রাকটি লারেডো থেকে যাচ্ছিল। সান আন্তোনিওর দিকে যাওয়ার সময় এনসিনাল শহরে দক্ষিণাঞ্চলীয় টেক্সাসে একটি ইমিগ্রেশন চেকপয়েন্ট এড়াতে গিয়ে একটি গাড়িটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হয়।

নিহতদের মধ্যে দুইজন মেক্সিকান পুরুষ, একজন গুয়াতেমালার নাগরিক এবং অপর একজন অজ্ঞাত ব্যক্তি।

টেক্সান সীমান্ত শহর লারেডোতে মেক্সিকান কনস্যুলেট এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, মেক্সিকোর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ মাইগ্রেশন (আইএনএম) থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ট্রাকটির ড্রাইভার, একজন মার্কিন নাগরিক, গুয়াতেমালার বলে মনে করা দুই ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

এর আগে টেক্সাস শহরের সান আন্তোনিওর কাছে একটি পরিত্যক্ত লরি থেকে ৫৩জন অভিবাসীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মার্কিন ইতিহাসে সবচেয়ে মারাত্মক মানব পাচারের ঘটনা।

সোমবার মৃত ব্যক্তিদের বহনকারী লরিটিও এনসিনালের একই চেকপয়েন্টের মধ্য দিয়ে গিয়েছিল, কিন্তু শনাক্ত করা যায়নি।

কর্তৃপক্ষ একটি বিভীষিকাময় দৃশ্যের সন্ধানের বর্ণনা দিয়েছে, ট্রেলারের ভেতরে মৃতদেহগুলো স্তূপ করা ছিল।

মেক্সিকো দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে, ট্রাকচালক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। তাকেসহ আরও গুয়েতেমালার আরও দুজনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বলে জানায় দূতাবাস।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবর

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধে রাশিয়ার ৭০-৮০ হাজার সেনা হতাহত: দাবি পেন্টাগনের

অনলাইন ডেস্ক
১০ আগস্ট ২০২২, রাত ১:৪৩ সময়

এর মধ্যে মাস ছয়েকের এই যুদ্ধে রাশিয়ার ৭০ থেকে ৮০ হাজার সেনা হতাহত হয়েছে বলে দাবি করেছে পেন্টাগন। অন্যদিকে, ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর দাবি, এ পর্যন্ত তাদের ৪২ হাজার ২০০ সেনার মৃত্যু হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সদর দফতর পেন্টাগনের শীর্ষ কর্মকর্তা কলিন কাল গতকাল সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি করেন।

তিনি বলেন, ইউক্রেন যুদ্ধে রুশ সেনাবাহিনীর হতাহতের সংখ্যা আসলে কত, তা নিয়ে ধোঁয়াশা থাকলেও অন্তত ৭০-৮০ হাজার সেনা হতাহত হয়েছেন। তার দাবি, হতাহতের সঠিক সংখ্যা কমবেশি হতে পারে। তবে অন্তত এই সংখ্যক সেনাকে হারিয়েছে রাশিয়া।

পেন্টাগনের ওই কর্তার দাবি, সেনাবাহিনীর পাশাপাশি চার কোটিরও বেশি ইউক্রেনীয় নাগরিকের বিরুদ্ধেও লড়তে হচ্ছে রাশিয়াকে। অন্যদিকে, আমেরিকাসহ বহু দেশের কাছ থেকে সামরিক সাহায্য পাচ্ছে ইউক্রেন। 

সূত্র : ওয়াশিংটন পোস্ট